মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৬:১৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ:
রাজধানীতে প্রেমিকের সঙ্গে অভিমানে প্রেমিকার আত্মহত্যা পাকিস্তানী টেলি-ড্রামায় মাতোয়ারা ভারতের দর্শকরা রোহিঙ্গাদের জোর করে ভাসানচরে পাঠানো হচ্ছে: অ্যামনেস্টি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন ১৬ জন করোনায় আক্রান্ত; জেলায় শনাক্ত সংখ্যা ২৬শ ছাড়ালো মফস্বল সাংবাদিকদের খাটো করে দেখার কোন সুযোগ নেই: আহসানুল হক আসিফ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আল-মদিনা ওষুধ কোম্পানির উদ্যোগে বিরামপুর আবারও ফ্রী মেডিক্যাল ক্যাম্প ইতালির পম্পেই নগরীর ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দু’জন ব্যক্তির দেহাবশেষ আবিষ্কার সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান গ্যাস লাইন লিকেজের মেরামত করতে গিয়ে বিস্ফোরণের ঘটনা সুচির সাথে বরিস জনসনের আলোচনায় রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে উদ্বেগ

ইতিহাস থেকে যে শিক্ষা নেয়া হয়নি আজও!

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ৭ আগস্ট, ২০২০

বাংলাদেশের বরিশালের মেয়ে মনীষা চক্রবর্তী যিনি নিজের টাকায় একটি গরু কিনে তা আল্লার সন্তুষ্টির জন্য কোরবানী করে মুমিন মুসলমানদের মধ্যে বন্টণ করেছেন। গরু ক্রয়, জবাই এবং ভাগ-বাটোয়া সার্বিক কাজ তিনি নিজে স্বশরীরে উপস্থিত থেকে সম্পাদন করেছেন।

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সরগরম। এক শ্রেণীর হিন্দু যারা দাবী করছেন মনীষার এই আচরণ হিন্দু ধর্মীয় আদর্শের প্রতি আঘাত যা দ্বারা সমগ্র হিন্দু সম্প্রদায়কে অপমান করা হয়েছে। এক শ্রেণীর তথাকথিত সেকুলার মুসলিম যারা এ কাজকে অসাম্প্রদায়ীক চেতনা বলে বুলি আওড়াচ্ছেন। আরেক শ্রেণীর বৃহৎ মুমিন গোষ্ঠী যারা মনীষার এই কৃতকর্মকে ইসলাম বহিঃভুত বেদিনের কীর্তি বলে প্রচার করছেন।
এবার আসা যাক আসল কথায়, মনীষার এই কৃতকর্মকে অসাম্প্রদায়ীক চেতনার এক টুকরো বাংলাদেশের মিল বন্ধন বলা যেতে পারে, কিন্তু ইতিহাস কি তা বলে? এবার চলুন ফিরে যাই ইতিহাসে।
১৯৪৭ সালে যখন ধর্মের ভিত্তিতে ভারত বিভক্ত হয় তখন আজকের বাংলাদেশটি অন্তর্ভুক্ত হয় পাকিস্তানে। এ পাকিস্তানে অন্তর্ভুক্তির জন্য শুধু মুসলিমদের সমর্থন ছিল তা নয়, নিম্ন বর্ণের হিন্দুরাও চেয়েছিল পাকিস্তানে যুক্ত হতে, কারণ তারা অভিতজাত শ্রেণীর হিন্দু দ্বারা শ্রেণী বৈষম্যের স্বীকার। সে সময় দলিত বা নিম্ন বর্ণের হিন্দু থেকে অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে এক ব্যক্তি আইনজীবি হোন, নাম তার যোগেন্দ্র নাথ মন্ডল, যিনি পাকিস্তানের একনিষ্ট সমর্থক, মোহাম্মদ আলী জিন্না তার প্রতি সন্তুষ্ট হয়ে নব গঠিত পাকিস্তানে তাকে উচ্চপদে অধিষ্ঠিত করেন, কিন্তু যোগেন্দ্র নাথ মন্ডলের মতিভ্রম কেটে যায় যখন পুর্বপাকিস্তানে অমুসলিমরা লুন্ঠিত, নীপীড়িত, ধর্ষিত, ধর্মান্তরিত ও দেশত্যাগে বাধ্য হতে থাকেন। যোগেন্দ্র নাথ মন্ডল অনেক প্রতিবাদ করেও প্রতিকার করতে না পেরে ভারতে যেতে বাধ্য হোন, কিন্তু সেখানে গিয়ে সমাজ, রাজনীতি বা যে কোন বিষয়ে নেতৃত্ব দিতে হিন্দুর কাছ থেকে সাড়া জাগাতে ব্যর্থ হোন, অবশেষে তার নিঃসঙ্গে মৃত্যু বরণ হয়।
মনীষা আজকে মুমিনদের বাংলাদেশে যে স্বপ্ন দেখছেন তার নীয়তি যোগেন্দ্র নাথ মন্ডলের অনুরুপ হতে বাধ্য।
দীর্ঘ ৩৫ বছরের বাম শাসনে ভারতীয় পশ্চিমবঙ্গে ধর্ম ত্যাগী হিন্দুরা ভগবানের শ্রাদ্ধ করে গরুর মাংস খেয়েছেন, কিন্তু বামপন্থী কোন মুসলমান শুকোরের মাংস খেয়েছেন তার একটি দৃষ্টান্তও নেই।
বামপন্থী হিন্দুরা গয়ায় গিয়ে পিন্ডদান করেননি কারও, মন্দিরে করেননি পূজো কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের বাম নেতা সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী হজ্জব্রত পালন করতেও বাকী রাখেননি।
তাই বলি ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিন মনীষা দিদি ব্রাহ্মণ তন্বয়া।

মোনালিসা ইরাবতী সুপ্তির ফেইসবুক থেকে।

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102