শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:২০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ:
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট যেসব সুবিধা পান বাস ও সিএনজি অটোরিকশা সংঘর্ষে এক শিশু নিহত, আহত ৫ ছোট ভাইয়ের জানাজার পর বড় ভাইয়ের মৃত্যু নাগোর্নো-কারাবাখের শেষ প্রদেশেও প্রবেশ করেছে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন ১২ জন আক্রান্ত, জেলায় ২৬৫৬ জন শনাক্ত কাশ্মীর ইস্যুতে আবারও উত্তপ্ত ভারত-পাকিস্তান দলীয় মনোনয়নের আবেদন ফরম সংগ্রহ করলেন সাবেক মেয়র হেলাল উদ্দিন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চাচাকে হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন একটি স্বাধীন, সুসংহত ও টেকসই ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পক্ষে বাংলাদেশ ওআইসি বৈঠকে জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে যৌথ প্রস্তাব গ্রহণ করেছে বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ মুসলিম দেশগুলো

চীন ও ভারতের মধ্যে বড়সড় সংঘাতের আশঙ্কা

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় শনিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২০
চীন ও ভারতের মধ্যে
চীন ও ভারতের মধ্যে বড়সড় সংঘাতের আশঙ্কা:
চীন ও ভারতের মধ্যে বড়সড় সংঘাতের আশঙ্কা। ভারত-চীন সীমান্তের পূর্ব লাদাখে চলমান উত্তেজনা ও অচলাবস্থার বিষয়ে সামরিক কোর কমান্ডার স্তরের অষ্টম পর্বের আলোচনা শুরু হয়েছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টায় ওই সংলাপ শুরু হয়। অষ্টম রাউন্ডের ওই বৈঠক লাদাখের চুসুলে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
জানা গেছে, এই পর্যায়ে ভারত আবারো চীনের সামনে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার দাবির পুনরাবৃত্তি করেছে। ভারতের দাবি, মে মাসের প্রথম সপ্তাহের আগে চীনা সেনারা যে জায়গায় ছিল চীন তার সেনাদের সেই জায়গায় ফিরিয়ে নিয়ে যাক।
অন্যদিকে, চীনের বক্তব্য ভারতীয় সেনারা প্রথমে প্যাংগং লেকের দক্ষিণাঞ্চল থেকে সরে যাক। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রের খবর, প্যাংগং লেকের উত্তর তীরে ফিঙ্গার এরিয়া ৫ থেকে ৮ পর্যন্ত ভারতীয় সেনা যাতে আগেরমতো টহল দিতে পারে, বৈঠকে সেই দাবি তোলা হবে। এছাড়া সংঘাতের নয়াক্ষেত্র অর্থাৎ প্যাঙ্গং লেকের দক্ষিণ তীর থেকে চীনা সেনা সরানোর দাবি জানানো হচ্ছে।
প্রকৃতপক্ষে, ভারত প্যাঙ্গং লেকের ওই অঞ্চলের কৌশলগত চূড়াগুলো দখল করেছিল, যখন চীনা সেনাবাহিনী ফিঙ্গার ৪-এর বাইরে ভারতীয় সেনাবাহিনীকে টহল দিতে দেয়নি। ওই অঞ্চলে উপস্থিত হয়ে ভারত নিজের অবস্থানে একটি কিছুটা এগিয়ে রয়েছে।
গত ১২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত সর্বশেষ সংলাপে চীন আংশিকভাবে ওই এলাকা থেকে সেনা প্রত্যাহারের প্রস্তাব করলেও ভারত তা প্রত্যাখ্যান করেছে। গত মে মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে পূর্ব লাদাখে উভয় দেশের সেনাবাহিনী মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। এরই মধ্যে দু’দেশের মধ্যে চলমান বিরোধ সাত মাস পার হয়ে গেছে। ওই সময়ের মধ্যে সপ্তম পর্যায়ের আলোচনা হয়েছে, কিন্তু কূটনৈতিক ও সামরিক স্তরে সংলাপ সত্ত্বেও এখনো পর্যন্ত কোনও সমাধান পাওয়া যায়নি।
এদিকে, পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় (এলএসি) ভারত ও চীনা সেনাদের মধ্যে বৃহত্তম সংঘাতের আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন, চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) জেনারেল বিপিন রাওয়াত। আজ শুক্রবার জেনারেল রাওয়াত বলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে চীন হাত মেলানোর ফলে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে।
জেনারেল রাওয়াত আরো বলেন, চীনা সেনাদের আগ্রাসী আচরণের কারণেই পূর্ব লাদাখে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। আগামীতে তা আরও তীব্র হতে পারে। তিনি বলেন, ‘নিরাপত্তা সংক্রান্ত সামগ্রিক ভাবনা থেকেই সীমান্ত সংঘাতে, আগ্রাসন এমনকি, প্ররোচনাহীন সামরিক দ্বৈরথের ঘটনা ঘটতে পারে। এরফলে বড় ধরণের সংঘাতও হতে পারে।’
প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা পরিবর্তনের কোনো প্রচেষ্টা আমরা বরদাশত করব না বলেও সিডিএস জেনারেল বিপিন রাওয়াত মন্তব্য করেছেন। সূত্র : পার্সটুডে

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

One thought on "চীন ও ভারতের মধ্যে বড়সড় সংঘাতের আশঙ্কা"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102