শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৩:০৮ পূর্বাহ্ন

ছুরিকাঘাতে এক ব্যবসায়ী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু

কাজী এস আই, স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা।।
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

রাজধানীর মগবাজারে পরিবাগে ছুরিকাঘাতে মিজানুর রহমান ডন (৪৫) নামের এক ব্যববসায়ী চিকিৎসাধীন অবস্হায় পদ্মা জেনারেল হাসপাতালের আই সি ইউ তে মৃত্যু বরন করেন  ।

গত রোববার (৩০আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মগবাজার টিএন্ডটি অফিসের সামনে ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে অবস্হার অবনিতি হলে বাংলা মটর পদ্মা জেনারেল হাসপাতালের (ICU) নিবির পরিচর্যা কেন্দ্র তে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্হায় বৃস্হপতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) সকাল সারে আটটার দিকে মারা যান।

তার বন্ধু মগবাজার বেলী রোড ইউনিটের সভাপতি মো. বাবুল মিয়া জানায়, ডনের বাসা মগবাজার চেয়ারম্যান গলিতে। মগবাজারে টিএন্ডটি অফিসের পাশে হোটেলের পাশাপাশি অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবসা আছে।

বাবুল মিয়া আরো জানায়, গত পরশু দিন টিএন্ডটি অফিসের পাশে আলমগীরের দোকানে ডনসহ কয়েকজন খাবার খায়। পরে খাবারের বিল না দিয়েই চলে যায়। রোববার সন্ধ্যায় ডন’সহ কয়েকজন টিএন্ডটি অফিস এলাকায় বসে আড্ডা দিচ্ছিল। একই এলাকার বাদশা তার ভাই কুট্টি, রিপন, মিজান’সহ কয়েকজন ডনকে ধরে জিজ্ঞাসা করে খাবারের বিল দেয় নাই কেন? এই বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে কুট্টি ডনের বুকের ডান পাশে ও নাভির নিচে ছুরিকাঘাত করে।

রমনা থানার উপ-পরিদর্ষক সহিদুল ইসলা(মাসুম) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে স্বজনরা তাকে পদ্মা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে মারা যান তিনি।
তিনি আরো জানান,,দোকানে বাকি খাওয়াকে কেন্দ্র করে পরিবাগ বিটিসিএল অফিসের সামনে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। ঘটনার পরপরই সাতজনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা করেন তার স্বজনরা।
ওই মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখন ওই মামলাটি হত্যা মামলা হবে। ’
প্রসঙ্গত, গত রোববার (৩০ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পরিবাগ বিটিসিএল অফিসের সামনে ঘটনাটি ঘটে।

মিজানুর রহমান ডনের পরিচিত বাবুল মিয়া নামে এক ব্যক্তি সেদিন হাসপাতালে এসে জানান, ডনের বাসা মগবাজারের চেয়ারম্যান গলিতে। তার হোটেলের ব্যবসা আছে। পাশাপাশি অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবসা করেন। ঘটনার এক দিন আগে পরিবাগ বিটিসিএল অফিসের পাশে আলমগীরের দোকানে ডনসহ কয়েকজন খাবার খান। পরে খাবারের বিল না দিয়েই তারা চলে যান। রোববার (৩০ আগস্ট) সন্ধ্যায় ডনসহ কয়েকজন পরিবাগ বিটিসিএল অফিসের সামনে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন। একই এলাকার বাদশা, তার ভাই কুট্টি, রিপন, মিজানসহ কয়েকজন ডনকে জিজ্ঞেস করেন তিনি খাবারের বিল দেননি কেন। বিষয়টি নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে কুট্টি ডনের বুকের ডান পাশে ও নাভির নিচে ছুরিকাঘাত করে।

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

One thought on "ছুরিকাঘাতে এক ব্যবসায়ী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102