মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৬:০২ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ:
রাজধানীতে প্রেমিকের সঙ্গে অভিমানে প্রেমিকার আত্মহত্যা পাকিস্তানী টেলি-ড্রামায় মাতোয়ারা ভারতের দর্শকরা রোহিঙ্গাদের জোর করে ভাসানচরে পাঠানো হচ্ছে: অ্যামনেস্টি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন ১৬ জন করোনায় আক্রান্ত; জেলায় শনাক্ত সংখ্যা ২৬শ ছাড়ালো মফস্বল সাংবাদিকদের খাটো করে দেখার কোন সুযোগ নেই: আহসানুল হক আসিফ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আল-মদিনা ওষুধ কোম্পানির উদ্যোগে বিরামপুর আবারও ফ্রী মেডিক্যাল ক্যাম্প ইতালির পম্পেই নগরীর ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দু’জন ব্যক্তির দেহাবশেষ আবিষ্কার সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান গ্যাস লাইন লিকেজের মেরামত করতে গিয়ে বিস্ফোরণের ঘটনা সুচির সাথে বরিস জনসনের আলোচনায় রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে উদ্বেগ

পরীক্ষা!

মো. আতিকুল আলম, সিরাজগঞ্জ 
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই, ২০২০

মো. আতিকুল আলম, সিরাজগঞ্জ।।

আজ ফাইনাল পরীক্ষা শুরু হইবে । যথাযথ প্রস্তুতি লইয়া পরীক্ষা হলের উদ্দেশ্য রাস্তায় বাহির হইয়াই মাথায় প্রথম বজ্রপাত হইল, রাস্তাযে একেবারে ফাঁকা! সমস্ত রিক্সাওলা কি আজ মরিয়াছে কিনা কে জানে! পরীক্ষা শুরু হইবার আর কয়েক মুহুর্ত বাকী আছে, হাটিয়া গেলেও প্রায় আধ ঘন্টা লাগিবে, কাজেই আমাকে দৌড়াইতে হইবে! আমি দৌড়াইতেছি, সমস্ত শক্তি দিয়া দৌড়াইতেছি। কিন্তু হায়, পা কেন জানি উঠিতেছে না! মনে হইতেছে কয়েক মন ওজনের পাথর আমার পায়ের সাথে বাঁধিয়া টানিয়া লইয়া যাইতেছি! পরীক্ষা শুরুর কয়েক মিনিট পার হইলেও অবশেষে পরীক্ষা হলের সামনে আসিতে পারিয়াছি, কি অপার শান্তি! কিন্তু হায়, আমার পায়ের জুতা জোড়া কখন কোথায় ছিড়িয়া খুলিয়া পড়িয়াছে! গায়ের সাদা ধবধবে সুন্দর জামাখানি কখন কোথায় ছিরিয়া পড়িয়াছে! প্রবেশ পত্র খানি আনিতেও ভুলিয়া গিয়াছি! আমি এখন হলে প্রবেশ করিব কেমন করিয়া? নেহায়েৎ আমি ভালো ছাত্র, শিক্ষক মহাশয় আমাকে চিনিতে পারিয়া পরীক্ষা হলে প্রবেশ করিতে অনুগ্রহ করিলেন। সময় অনেক খানি চলিয়া গিয়াছে, আমার সমস্ত মেধা, বিদ্যা লাগাইয়া প্রশ্নের উত্তর লেখা শুরু করিয়াছি। শেষ ঘন্টা বাজিবার আর মিনিট খানিক বাকী, খাতায় শেষ লাইন লেখিয়া যেইনা চক্ষু বুলাইতে লাগিয়াছি, মাথায় যেন একের পর এক বজ্রপাত হইতে শুরু করিল! আকাশ যেন সমস্ত ওজন লইয়া আমাকে চাপা দিতে লাগিলো! এ আমি কি করিয়াছি? আজ তো ইংরাজি পরীক্ষা, আমি বাংলা লেখিয়া সমস্ত সময়, খাতা, কলম শেষ করিয়াছি!!

ছাত্র থাকিতে এমন স্বপ্ন প্রায়শই দেখিতাম, কেননা ছাত্র হিসেবে আমি উত্তম ছিলাম না। পরীক্ষা নিয়া বাস্তবিক দুশ্চিন্তা স্বপ্নে প্রতিফলত হইত। ছাত্র জীবনে এমন কিংবা প্রায় এমন স্বপ্ন যাহারা দেখেন নাই, মনে হয় তাহারা হয় অতি উত্তম কিংবা একেবারেই অধম, যাহাদের পরীক্ষা লইয়া চিন্তার কিছুই ছিল না।

ছাত্র জীবনের সমস্ত পরীক্ষা শেষ করিয়াছি অনেক আগেই। এখনো প্রায়শই এমন স্বপ্ন দেখিয়া ঘুম ভাঙ্গিয়া যায়। তবে কি আমার এখনো কোনো পরীক্ষা রহিয়া গিয়াছে? হয়তো রহিয়াছে। জীবনটাই তো একটি পরীক্ষা কেন্দ্র! চূড়ান্ত পরীক্ষার দিনতো আমরা সৃষ্টিকর্তার সম্মুখে উপস্থিত হইব।

জীবনের শুরু হইতে শেষ দিন পর্যন্ত আমরা লিখিয়া চলিব। নিজের বিদ্যা দ্বারা লিখিব, পরের লেখা দেখিয়া লিখিব, নকল করিয়া লিখিব। আমরা ধনকুবের হইব, সম্পদের পাহাড় গড়িবো, সম্মানের মালিক হইব, দুনিয়ার মালিক হইব, আরও কতো কিছুর মালিক হইব। শাহেদ কিংবা সাবরিনার মতো অনেকেই অসদুপায় অবলম্বন করিয়া পরীক্ষার হল হইতে বহিষ্কার হইবে। অতীতে হইয়াছে, ভবিষ্যতেও হইবে। তাই বলিয়া কি আমরা থামিয়া থাকিব? না, আমরা লিখিতেই থাকিব, কলমের কালি শেষ করিয়া ফেলিব, খাতা ফুরাইয়া ফেলিব, সময়ের শেষ পর্যন্ত লিখিব। অতঃপর যখন চূড়ান্ত পরীক্ষার দিন আসিবে, তখন দেখিব আমাদের পায়ে জুতো নাই, গায়ে জামা নাই কিংবা যাহা লিখিয়াছি তাহার সমস্তই ভূল!!

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

One thought on "পরীক্ষা!"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102