বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ১১:৫৭ অপরাহ্ন

ভয়াবহ বিস্ফোরণে খাদ্য সংকটে লেবানন

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০২০
ছবি: সংগৃহীত

গত মঙ্গলবার লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে ইতিমধ্যেই ১৫০ জনেরও বেশি নিহত ও ৫ হাজারের বেশি আহত হয়েছে। হতাহতের মধ্যে ৪ বাংলাদেশির প্রাণহানী এবং ৯৯ জনের আহত হওয়ার খবর ‍দিয়েছে লেবাননে অবস্থিত বাংলাদেশ মিশন। ধ্বংসস্তূপের মধ্যে নিখোঁজ ব্যাক্তিদের সন্ধানে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন দেশের উদ্ধারকর্মীরা। ভয়াবহ বিস্ফোরণের কারণে আগামী দিনে লেবানন চরম অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে পড়তে চলেছে, এই বিস্ফোরণের কারণে চরম খাদ্য সংকট দেখা দেওয়ার আশংকা করা হচ্ছে দেশটিতে । আগে থেকেই অর্থনৈতিক ভাবে বিপর্যস্ত ছিল লেবানন, তার মধ্যে করোনা মহামারীতে এসে চরম দুঃসময় পার করছে তারা। এর উপর এই ভয়াবহ বিস্ফোরণে লেবাননে চরম খাদ্য সংকট দেখা দিতে পারে।

গত মঙ্গলবার যেখানে বিস্ফোরণ হয়েছিল, সেটি মূলত বন্দর এলাকা। আর সেখানেরই গুদাম গুলিতে মজুদ রাখা ছিল দেশের প্রয়োজনের হাজার হাজার টন খাদ্যশস্য। বিস্ফোরণে ধ্বংস হয়ে গিয়েছে সেই সব খাদ্যশস্য। লেবাননের অর্থমন্ত্রী রাউল নেহমে চরম হতাশার সঙ্গে জানিয়েছেন যে, মাত্র এক মাসের মত খাদ্যশস্য রয়েছে লেবানন সরকারের হাতে।

আন্তর্জাতিক খবর সংস্থা রয়টার্স এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, লেবাননের বৈরুতের বন্দরে বহু খাদ্য গুদাম রয়েছে। আর সেই সমস্ত গুদামগুলিতে প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টন খাদ্য শস্য মজুদ করার ক্ষমতা রয়েছে। বিস্ফোরণের ফলে গুদামগুলিতে মজুদ রাখা সব খাদ্যশস্য নিমেষের মধ্যেই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। অর্থমন্ত্রী নেহমের কথাই, দেশের সাধারণ মানুষের খাদ্য সুরক্ষার জন্য অন্তত পক্ষে ৩ মাসের খাদ্য মজুদ করে রাখে লেবাননের সরকার। কিন্তু মঙ্গলবারের এই ভয়াবহ ঘটনার পর যে পরিস্থিতি দাঁড়াল, তাতে মাত্র ১ মাস চলতে পারে এই খাবারে।

যদিও এই অসহায় পরিস্থিতিতে হার মানতে রাজী নয় লেবানন সরকার। জানা গেছে গুদামগুলি থেকে আগেই কিছু ব্যবসায়ী মাল খালাস করে নিয়েছিলেন। এখন তাদের থেকে সংগ্রহ করা হবে ঐ খাদ্য শস্যগুলো। একই সাথে আরও ২৮ হাজার টন গম নিয়ে বৈরুতের বন্দরেই আসছে আরও চারটি জাহাজ।

বিস্ফোরণের পর প্রেসিডেন্ট মিশেল আউনের নেতৃত্বে দেশটির প্রতিরক্ষা পরিষদ এক জরুরি বৈঠকে বসে। বৈঠক শেষে দেশটিতে রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন প্রেসিডেন্ট আউন। এই ঘটনায় তিনি ১০ হাজার কোটি লেবাননি পাউন্ড সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

লেবাননের এই কঠিন পরিস্থিতিতে পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন বিশ্ব নেতারা। লেবাননকে সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, ইরান, ইসরায়েল ও নেদারল্যান্ড। আজ বৃহস্পতিবার লেবানন পরিদর্শনে যাবার কথা ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর।

লেবাননের গভর্নর মারওয়ান আবুদ বলেছেন, বিস্ফোরণে সব মিলিয়ে ক্ষতির পরিমাণ ৩০০ থেকে ৫০০ কোটি ডলার হতে পারে। তিনি আরও বলেছেন, লেবাননের প্রকৌশলী ও কারিগরি দল ক্ষতির পরিমাণ নিরুপণে কাজ করছে। সূত্র: রয়টার্স/অনলাইন

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102