বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ:
ইয়েমেনে অপুষ্টিতে লাখো শিশু মৃত্যু ঝুঁকিতে বাংলাদেশ এবং তুরস্কের সম্পর্ক আত্মিক : পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাশ্মিরিদের ঘরে বন্দী রেখেই এবার ভারতীয়দের জমি কেনার অনুমতি দিলেন মোদি ঢাকায় ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে বিশাল মিছিল, দূতাবাস ঘেরাও আটকাল পুলিশ ম্যাক্রোঁকে সমর্থন করছে ভারতীয়রা আগাম ভোটের সংখ্যা ১০ কোটিতে পৌঁছাতে পারে যুক্তরাষ্ট্রে যুক্তরাষ্ট্র-ভারত সামরিক চুক্তি আঞ্চলিক শান্তির প্রতি হুমকি: পাকিস্তানের হুঁশিয়ারি ৩১ বাংলাদেশীসহ ৩৮ অবৈধ অভিবাসী আটক মালয়েশিয়ায় মালয়েশিয়ায় জরুরি অবস্থা জারির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান রাজার বাসা থেকে ডেকে নিয়ে এক কিশোরকে হত্যার অভিযোগ

মহাকাশে পর্যটন শিগগিরই

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০

দীর্ঘদিন ধরে মহাকাশের পর্যটন নিয়ে কাজ করছে ভার্জিন গ্যালাক্টিক। ভার্জিন গ্যালাক্টিক হচ্ছে মহাকাশ পর্যটনবিষয়ক একটি ব্রিটিশ ‘স্পেসশিপ’ সংস্থা। যুক্তরাজ্যের শিল্পপতি রিচার্ড ব্রনসন এটি প্রতিষ্ঠা করেন। রিচার্ড ব্রনসন ২০০৪ সাল থেকে বাণিজ্যিকভাবে মহাকাশ পর্যটনের চেষ্টা চালিয়ে আসছেন। এই প্রতিষ্ঠানের অন্যতম লক্ষ্য বাণিজ্যিকভাবে মহাকাশ পর্যটন। মহাকাশে পর্যটক আনার জন্য নানা উদ্যেগ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। সম্প্রতি তারা তাদের নতুন মহাকাশযান বা ভিএসএস ইউনিটি উদ্বোধন করেছে। প্রকাশ করেছে মহাকাশ পর্যটন যানটির ভেতরে যাত্রীদের বসার কেবিনটি কেমন হবে তার নকশা।

ভার্জিন গ্যালাক্টিক মনে করেন যে, এই মহাকাশযানের কেবিনটিই পর্যটক আনার মূল আকর্ষণবিন্দু। এর কেবিনটি অত্যন্ত বিলাসবহুল। এতে ৬ জন যাত্রী বসতে পারবে। এ ছাড়া থাকবে দুজন পাইলটের বসার জায়গা। ইতিমধ্যে ৬০০ যাত্রী টিকিট কিনে ফেলেছেন  এবং আরও ৪০০ জন যাত্রী বুকিং দিয়ে রেখেছেন বলে জানা যায়।

তাছাড়া, সিএনবিসি নিউজের এক প্রতিবেদনে বল হয়, এই মহাকাশযানে রয়েছে ১৭ টি জানালা। রয়েছে ১৬ টি ক্যামেরা। রয়েছে একটি গোলাকার বড় আয়না। কেবিনে বসেই যাত্রীরা ভারশূন্য অবস্থায় নিজেদের আসনে থেকেই এই আয়নায় নিজেদের ঘুরে বেড়ানোর দৃশ্য দেখতে পারবেন। অবলোকন করতে পারবেন পৃথিবীর সীমানা ছাড়িয়ে মহাকাশের নানান দৃশ্য ও রহস্য। প্রথিবী থেকে ৬৮ মাইল উচ্চতায় পৌঁছে তারা মহাকাশের একেবারে প্রান্ত ভ্রমণ করতে পারার সুযোগ পাবেন। তবে এই মহাকাশ ভ্রমণ শুধু ধনীদের পক্ষেই সম্ভব। কারণ, এর প্রতিটি টিকিটের দাম ধরা হয়েছে ২ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার। বাণিজ্যবিষয়ক পত্রিকা বিজনেস ইনসাইডার জানায়, বেশ কয়েকটি চূড়ান্ত পরীক্ষামূলক ফ্লাইট মহাকাশ পরিভ্রমণ করলেও গ্যালাক্টিক ঠিক কখন বা কবে যাত্রী নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে মহাকাশ যাত্রা শুরু করবে, তার চূড়ান্ত দিনক্ষণ ঠিক করেনি। তবে এই বছরের শেষে মহাকাশ পর্যটকদের প্রথম দল নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। যাত্রী নিয়ে মহাকাশযানটির নিউ মেক্সিকোতে সংস্থাটির স্পেসপোর্ট থেকে যাত্রা শুরু করার কথা। এর আগে ২০০৪ সালে যখন প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করে, তখন তাদের লক্ষ্য ছিল ২০০৯ সালের মধ্যে যাত্রী নিয়ে মহাকাশ যাত্রা শুরু করার। কিন্তু নানা জটিলতায় তা বারবার পিছিয়েছে।

আর এই দিকে রিচার্ড ব্রনসন বলেন, তারা শুরু থেকেই চেষ্টা করছেন মহাকাশে ভ্রমণের দরজা সাধারণ মানুষের জন্য খুলে দিতে। তিনি আশা করছেন সে দিন আর খুব দূরে নয়, যে দিন সাধারণত মানুষ হরহামেশাই মহাকাশে যেতে-আসতে পারবেন।

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102