মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৪০ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ রাজধানীতে প্রেমিকের সঙ্গে অভিমানে প্রেমিকার আত্মহত্যা পাকিস্তানী টেলি-ড্রামায় মাতোয়ারা ভারতের দর্শকরা রোহিঙ্গাদের জোর করে ভাসানচরে পাঠানো হচ্ছে: অ্যামনেস্টি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন ১৬ জন করোনায় আক্রান্ত; জেলায় শনাক্ত সংখ্যা ২৬শ ছাড়ালো মফস্বল সাংবাদিকদের খাটো করে দেখার কোন সুযোগ নেই: আহসানুল হক আসিফ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আল-মদিনা ওষুধ কোম্পানির উদ্যোগে বিরামপুর আবারও ফ্রী মেডিক্যাল ক্যাম্প ইতালির পম্পেই নগরীর ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দু’জন ব্যক্তির দেহাবশেষ আবিষ্কার সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান

মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়াটা গ্রহণযোগ্য নয়-বসনিয়ার প্রেসিডেন্ট

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ৬ নভেম্বর, ২০২০
মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত
প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও বসনিয়ার প্রেসিডেন্ট শেফিক জাফরভিচ (ডানে)

 

মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়াটা গ্রহণযোগ্য নয়। পশ্চিমে ইসলামভীতি নিরসনে আন্তধর্মীয় সংলাপের আহ্বান পাকিস্তান, বসনিয়ার।
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বুধবার পশ্চিমা দেশগুলোকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, তারা যেন বাক স্বাধীনতাকে ‘অস্ত্র’ হিসেবে ব্যবহার করে মুসলিমদের মনে আঘাত না দেয়। এতে কট্টরপন্থা ও সহিংসতা আরও বেড়ে যেতে পারে বলেও সতর্ক করেন তিনি।
সফররত বসনিয়া ও হার্জেগোভিনার প্রেসিডেন্সির চেয়ারম্যান সেফিক জাফেরোভিচের সাথে আয়োজিত এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে খান এ মন্তব্য করেন। দুই নেতা ফ্রান্স ও অস্ট্রিয়াতে সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডেরও নিন্দা জানান। দুই পক্ষই সকল ধর্ম, বিশেষ করে ইউরোপে বসবাসরত মুসলিমদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের উপর গুরুত্বারোপ করেন।
খান জোর দিয়ে বলেন নবী মোহাম্মদ (সা.) কে ব্যাঙ্গ করলে এবং তাকে নিয়ে ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন আঁকলে সেটা মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে ‘তীব্র যন্ত্রণার’ জন্ম দেয়।
খান বলেন, “ইউরোপিয় শক্তি, পশ্চিমা দেশগুলোকে অবশ্যই বুঝতে হবে যে, বাক স্বাধীনতাকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করে আমাদের নবীকে অপমান করে আপনারা মুসলিমদের যন্ত্রণা দিতে পারেন না। এটা যদি উপলব্ধি করা না হয়, তাহলে সহিংসতার এই চক্র ঘটতেই থাকে”।
ইউরোপের পরিস্থিতিকে ‘ইসলামভীতি’ হিসেবে উল্লেখ করে একে প্রত্যাখ্যান করেন জাফেরোভিচ। তিনি বলেন, মানুষের স্বাধীনতার সীমা থাকা উচিত নয়, কিন্তু মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়াটা গ্রহণযোগ্য নয়।
জাফেরোভিচ বলেন, “আমাদেরকে সেতুবন্ধন গড়তে হবে, আমাদেরকে একসাথে বসতে হবে, বিভিন্ন বৈচিত্রের মধ্যে আমাদেরকে ঐক্য গড়তে হবে”।
গত মাসে প্যারিসের একটি স্কুলের শিক্ষক বাক স্বাধীনতার ক্লাসে নবী মোহাম্মদের কার্টুন দেখানোর পর স্কুলের বাইরে তাকে গলা কেটে হত্যা করে এক ব্যক্তি। ফরাসী কর্তৃপক্ষ যখন বিষয়টির তদন্ত করছিল, তখন আরেক তিউনিসিয়ান ব্যক্তি নিসের একটি গির্জায় তিন ব্যক্তিকে মারাত্মকভাবে জখম করে।
ফ্রান্সে প্রকাশকদের নবী মোহাম্মদের কার্টুন আঁকানোর অধিকার রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ফরাসী প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রন, মুসলিমরা যেটাকে চরম নিন্দ্যনীয় মনে করে। ম্যাক্রনের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন অনেকে এবং মুসলিম দেশগুলোতে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে।
গত সপ্তাহে ম্যাক্রন আল-জাজিরাকে বলেন, “কার্টুন নিয়ে মুসলিমদের অনুভূতিটা তিনি বোঝেন”। কিন্তু তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, প্রেসিডেন্ট হিসেবে মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ন্ত্রণ করাটা তার দায়িত্ব নয়। ফরাসি নেতা জোর দিয়ে বলেন যে, সরকার যে ‘কট্টর ইসলামপন্থীদের’ মোকাবেলা করছে, তারা সবার জন্যই হুমকি, বিশেষ করে মুসলিমদের জন্য।

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102