সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০১:২২ অপরাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্রকে চীনের কঠিন হুঁশিয়ারি !

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০

স্বশাসিত তাইওয়ান নিজেদের স্বাধীন অঞ্চল বলেই মনে করে। কিন্তু চীন বরাবরই মনে করে তাইওয়ান তাদের অংশ। চীন আরেকবার তাইওয়ান দখলের কঠিন হুমকি দিল। চীনা সেনার শীর্ষ কর্মকর্তা কর্নেল রেন গুয়োকোয়াংয় এই কঠিন হুঁশিয়ারি দেন। তাইওয়ান দখলের সময় যদি যুক্তরাষ্ট্র কোনো প্রকার বাধা দেয় তাহলে যুক্তরাষ্ট্রকে এর জন্য কঠিন পরিণতি ভুগ করতে হবে।

গত শনিবার চীনের রাজধানী বেইজিং-এ এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই কথা বলেন ঐ শীর্ষ সেনা কর্মকর্তা। এই খানে উল্লেখ্য যে সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ৫০ কোটি ডলারের এক সামরিক চুক্তি করেছে তাইওয়ান। এই চুক্তির ফলে চীন যুক্তরাষ্ট্রকে কঠিন হুঁশিয়ারি দেন বলে মনে করেন কূটনৈতিক মহলের একাংশ।

তাইওয়ানে মার্কিন সেনা মহড়ারও কড়া নিন্দা করেছেন ঐ সেনা কর্মকর্তা। সেনা কর্মকর্তার কথায় এই ধরনের পদক্ষেপে চীন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। প্রসঙ্গত তাইওয়ানের সেনাকে যে মার্কিন বাহিনী প্রশিক্ষণ দিয়েছে, তা তাদের সাম্প্রতিক সেনা মহড়াতেই স্পষ্ট। তাইওয়ান গত জুলাইয়ে শক্তি প্রদর্শন করে তিন বাহিনীর ব্যাপক মহড়ার আয়োজন করে। উক্ত সেনা মহড়ায় অংশ নিয়েছিলেন ৮ হাজার তাইওয়ানি সেনা সদস্য, সাথে দেখা যায় এফ-১৬ এবং দেশীয় চিং-কাও’র মতো বিমান বাহিনীর বিমানও।

গত বছর তাইওয়ানকে একটি কঠিন বার্তা দিয়েছিলেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। তিনি বলেছিলেন যে, ‘স্বাধীনতার কথা ভুলে যান, শান্তিপূর্ণ ভাবে আমাদের সঙ্গে জুড়ে যান !’ এমনকি মুখে শান্তির কথা বললেও, প্রয়োজনে সামরিক বাহিনীও নামানো হতে পারে বলে হুঁশিয়ারি ‍দিয়েছিলেন তিনি। শুধু তাই নয়, তাইওয়ানের সঙ্গে বর্তমান  সম্পর্ক চীনের আভ্যন্তরীণ রাজনীতির বিষয় বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। তাই এক্ষেত্রে কোনও বিদেশি ‍পক্ষের কোনো প্রকার হস্তক্ষেপ সহ্য করা হবে না।

বছরের শুরুতেই আবার তাইওয়ানের ক্ষমতায় আসেন সাই ইং ওয়েন। পুনরায় ক্ষমতা দখলের পরপরই প্রেসিডেন্ট স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিলেন চীনের কাছে মাথা নত করবে না তাইওয়ান। এদিকে স্বশাসিত তাইওয়ান নিজেদের স্বাধীন অঞ্চল বলেই মনে করে। যদিও তারা চীনের মূল ভূখণ্ড থেকে কখনও আনুষ্ঠানিক ভাবে স্বাধীনতার কথা ঘোষণা করেনি। আর বেইজিং সবসময় মনে করে তাইওয়ান চীনের অংশ।

চীন সব সময় তাইওয়ানের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের বেশি আগ্রহকে ভাল চোখে দেখে না। তাই এইবার যুক্তরাষ্ট্রকে সরাসরি সাবধান ও কঠিন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন চীন ।

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102