শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০২:০৬ পূর্বাহ্ন

সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার মেহবুবা মুফতির

অনলাইন ডেস্ক ।।
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২০
সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার মেহবুবা মুফতির
ছবি: সংগৃহীত

সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার মেহবুবা মুফতির:
১৪ মাস পর মুক্তি লাভ

সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছেন মেহবুবা মুফতি, প্রায় ১৪ মাস পর মুক্তির তিনি এ কথা বলেন।

জম্মু-কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা পুনরুদ্ধারের জন্য সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন।

এক বছরেরও বেশি সময় ধরে আটক থাকার পরে মুক্তি পেয়ে তিনি এ কথা বলেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত পৌনে ১০টা নাগাদ তাকে মুক্তি দেয়া হয়।

মেহবুবার মুক্তির বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে টুইট করে জানান জম্মু-কাশ্মির সরকারের মুখপাত্র রোহিত কানসাল। মুক্তি পাওয়ার পরে পিডিপি নেত্রী তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমি এক বছরেরও বেশি সময় পরে মুক্তি পেয়েছি।

এই সময়ে, ৫ আগস্ট, ২০১৯ সালের কালো দিনের ‘কালো সিদ্ধান্ত’ (৩৭০ ধারা প্রত্যাহার) প্রতি মুহূর্তে আমার হৃদয় এবং আত্মাকে আক্রমণ করেছে। আমি মনে করি জম্মু-কাশ্মিরের সব মানুষও একই রকম অবস্থা অনুভব করেছে। সে দিনের অপমান আমরা কখনো ভুলতে পারি না।

মেহবুবা বলেন, এখন আমাদের সবাইকে মনে রাখতে হবে যে, দিল্লি ৫ আগস্ট বেআইনিভাবে আমাদের কাছ থেকে যা (৩৭০ ধারা) কেড়ে নিয়েছে তা ফিরিয়ে নিতে হবে।

এর পাশাপাশি কাশ্মির ইস্যু, যে জন্য জম্মু-কাশ্মিরের হাজার হাজার মানুষ নিজের জীবন উৎসর্গ করেছেন, এর সমাধানের জন্য আমাদের সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে। আমি মনে করি যে, এই পথটি সহজ নয়; কিন্তু আমি নিশ্চিত যে আমরা সবার উৎসাহ এবং অনুপ্রেরণা পেয়েছি, তাতে আমরা সফল হব। আমি চাই যে, জম্মু-কাশ্মিরের যত মানুষ এখনো কারাগারে বন্দী আছেন তাদের সবাইকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়া হোক।

সুপ্রিম কোর্টে মেহবুবা মুফতির আটক সম্পর্কিত বিষয়টি পরবর্তী শুনানির মাত্র দু’দিন আগে তাকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। গত বছর ৫ আগস্ট ৩৭০ ধারা বাতিল করার পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি তার বিরুদ্ধে কঠোর জননিরাপত্তা আইন (পিএসএ) কার্যকর করা হয়। গত ৭ এপ্রিল তাকে সরকারি বাসভবনে নিয়ে যাওয়া হয় এবং সেটিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগেই উপকারাগার ঘোষণা করা হয়েছিল। চলতি বছরের ৩১ জুলাই তার হেফাজতের মেয়াদ আরো তিন মাস বাড়ানো হয়েছিল।

গত বছর ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল করার পর আগস্টে মুফতিকে গ্রেফতার করা হয়েছিল, ওই সময় কাশ্মিরের বহু রাজনীতিককে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে মুক্তি পাওয়া শেষ গুরুত্বপূর্ণ নেতা মুফতি।

ভারতের জননিরাপত্তা আইনে মুফতিকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। এই আইনে গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিকে বিনা বিচারে সর্বোচ্চ দুই বছর পর্যন্ত আটক রাখা যায়।

মুফতির মুক্তি সংক্রান্ত আদেশে তার আটকাদেশ তাৎক্ষণিকভাবে প্রত্যাহার করার নির্দেশ দেয়া হয়। কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ অঞ্চলটিকে ভারতের বাকি অংশের সাথে একত্রিত করতে এই পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন।

জম্মু ও কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন প্রত্যাহার করে এর রাজ্য মর্যাদা বিলুপ্ত করার পর অঞ্চলটিকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত এলাকায় ভাগ করা হয়।

এসব সিদ্ধান্তে কাশ্মিরজুড়ে ব্যাপক প্রতিবাদ শুরু হতে পারে আশঙ্কায় সরকার সব ধরনের মোবাইল, ইন্টারনেট ও ল্যান্ডফোনের সংযোগ বন্ধ করে দিয়ে মুফতিসহ বহু লোককে আটক করে। আটক কাশ্মিরের শীর্ষ রাজনীতিক ও সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ ও ওমর আবদুল্লাহকে চলতি বছরের প্রথমদিকে মুক্তি দেয়া হয়।

জননিরাপত্তা আইনে মায়ের আটকাদেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে একটি হেবিয়াস কর্পাস পিটিশন দাখিল করেছিলেন মুফতির কন্যা। আজ বৃহস্পতিবার ওই পিটিশনের শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

মেহবুবার মেয়ে ইলতিজা মুফতি তার মাকে কোন যুক্তিতে আটকে রাখা হয়েছে তা নিয়ে সোচ্চার হয়েছিলেন। সরকারের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেন ইলতিজা মুফতি।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর ওই মামলার শুনানির সময়ে আদালত সরকারের কাছে জানতে চেয়েছিল আর কত দিন মেহবুবাকে তাদের হেফাজতে রাখবে। এ বিষয়ে দু’সপ্তাহের মধ্যে সরকারের কাছে জবাবদিহি চেয়েছিল আদালত। সূত্র – রয়টার্স ও পার্স টুডে।

আরও পড়ুন: ১৬ বছরের তরুণী একদিনের জন্য হলো প্রধানমন্ত্রী

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

2 thoughts on "সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার মেহবুবা মুফতির"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102