বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০১:১৮ অপরাহ্ন

সহকারী শিক্ষকদের পদোন্নতির সুখবর দিলেন শিক্ষা মন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় বুধবার, ১৯ আগস্ট, ২০২০

আমাদের দেশের সহকারী শিক্ষকদের পদোন্নতির ব্যবস্থা ছিল না দীর্ঘদিন ধরে। অবশেষে সেই জটিলতার অবসান ঘটছে। দেশের সকল বেসরকারি এমপিও ভুক্ত স্কুলের অর্ধেক শিক্ষককে সিনিয়র শিক্ষক পদে পদোন্নতি দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি। সহকারী শিক্ষক পদে যোগদানের ১০ বছর পর সিনিয়র শিক্ষক পদে পদোন্নতি পাবেন তারা। সম্প্রতি এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো সংশোধনী ছূড়ান্তকরণের এক সভায় বেসরকারি এমপিওভুক্ত স্কুলের ৫০ শতাংশ সহকারী শিক্ষককে পদোন্নতি দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দিপু মনির সভাপত্তিতে এক সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। জানা গেছে , এমপিও ভুক্ত মাধ্যমিক স্কুলে যোগদান করা সহকারী শিক্ষকরা দীর্ঘ দিন ধরে কোন প্রকার পদোন্নতি পাচ্ছিলেন না। কারণ তাদের পদোন্নতির কোনো ব্যবস্থা বা নিয়ম ছিল না।

সহকারী শিক্ষকরা ১০ বছর চাকরির পর তারা সহকারী প্রধান শিক্ষক হওয়ার জন্য আবেদন করতে পারতেন। তবে সেই জটিলতা এইবার কাটছে। দেশের ৫০ শতাংশ সহকারী শিক্ষকদের সিনিয়র শিক্ষক পদে পদোন্নতি দেওয়া হবে। এই বিষয়টি নিয়ে নীতিমালা সংশোধনী চূড়ান্তকরণের কাজ সভায় আলোচনা হয়েছে।

চাকরির ১০ বছর পূর্তিতে এমপিওভুক্ত স্কুলের অর্ধেক শিক্ষককে সিনিয়র শিক্ষক পদে পদোন্নতি করার বিধান রেখে এমপিও নীতিমালা সংশোধন করার সিদ্ধান্ত এই সভার নেয়া হয়েছে।

এইখানে উল্লেখ্য যে, সম্প্রতি সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অর্ধেক শিক্ষকদেরও পদন্নোতি দেওয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে । সেই আলোকেই বেসরকারি মাধ্যমিক স্কুলের ৫০ শতাংশ সহকারী শিক্ষকদেরও পদোন্নতি দেওয়া বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে।

বর্তমানে দেশে করোনা ভাইরাসের কারণে স্বাস্থ্য বিধি মেনে এই সভাটি ভার্চয়াল মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসন চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোহাম্মদ মাহবুব হোসেন সহ এমপিও নীতিমালা সংশোধন কমিটির সকল সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন। এই ভার্চয়াল সভায় এমপিও নীতিমালা সংশোধনের বিভিন্ন প্রস্তাব উদ্ধাপন করেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব এবং নীতিমালা সংশোধন কমিটির আহবায়ক মোমিনুর রশিদ আমিন।

সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের বেতন উচ্চ ধাপে নির্ধারণ করা হয়েছে। বুধবার ১২ই আগস্ট অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ থেকে এই সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করা হয়। আদেশটি প্র্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। খবর: সময়

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102