মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৮:১৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ:
রাজধানীতে প্রেমিকের সঙ্গে অভিমানে প্রেমিকার আত্মহত্যা পাকিস্তানী টেলি-ড্রামায় মাতোয়ারা ভারতের দর্শকরা রোহিঙ্গাদের জোর করে ভাসানচরে পাঠানো হচ্ছে: অ্যামনেস্টি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন ১৬ জন করোনায় আক্রান্ত; জেলায় শনাক্ত সংখ্যা ২৬শ ছাড়ালো মফস্বল সাংবাদিকদের খাটো করে দেখার কোন সুযোগ নেই: আহসানুল হক আসিফ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আল-মদিনা ওষুধ কোম্পানির উদ্যোগে বিরামপুর আবারও ফ্রী মেডিক্যাল ক্যাম্প ইতালির পম্পেই নগরীর ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দু’জন ব্যক্তির দেহাবশেষ আবিষ্কার সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান গ্যাস লাইন লিকেজের মেরামত করতে গিয়ে বিস্ফোরণের ঘটনা সুচির সাথে বরিস জনসনের আলোচনায় রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে উদ্বেগ

সীমানা নিয়ে আসাম ও মিজোরামে মধ্যে সংঘর্ষ

অনলাইন ডেস্ক ।।
  • আপডেট সময় বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০
সীমানা নিয়ে আসাম ও
ছবি; সংগৃহীত

সীমানা নিয়ে আসাম ও মিজোরামে মধ্যে সংঘর্ষ:

ভারতের আসাম ও মিজোরাম রাজ্যের সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে সীমান্ত অঞ্চলের বাসিন্দাদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যার ওই সঙ্ঘাতে বেশ কয়েকজন আহত হওয়া ছাড়াও বেশ কয়েকটি অস্থায়ী দোকান ও কুঁড়ের ঘর পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

বিষয়টি নিয়ে উভয় রাজ্য সরকারই নয়া দিল্লির দ্বারস্থ হয়েছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। মিজোরামের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে বসবেন আসাম ও মিজোরামের দুই মুখ্য সচিব।

এই নিয়ে চলতি মাসে দ্বিতীয়বারের মতো সঙ্ঘাতে জড়াল ওই দুই রাজ্যের বাসিন্দারা। শনিবার আসামের কাছার জেলার লাইলাপুর গ্রামের বাসিন্দাদের সাথে মিজোরামের কোলাসিব জেলার ভারিন্তে এলাকার বাসিন্দাদের সংঘর্ষ হয়।

গত রোববার কোলাসিব জেলার ডেপুটি কমিশনার এইচ লালথাংলিয়ানা জানিয়েছেন, সংঘর্ষে মিজোরামের তিন বাসিন্দা আহত হয়েছেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে তিনি বলেছেন, একজন সঙ্কটজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি জানান, লাইলাপুরের কিছু লোক সীমান্তের কাছে মোতায়েন করা মিজোরামের পুলিশ ও ওই এলাকার বাসিন্দাদের ওপর পাথর ছোড়া শুরু করলে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।

এক পর্যায়ে মিজোরামের লোকজন জড়ো হয়ে লাইলাপুরের লোকজনকে ধাওয়া দেয়, এরপর দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়।

লালথাংলিয়ানা বলেন, কিছু এলাকায় আসাম ও মিজোরাম সীমান্ত চিহ্নিত করা নেই। কয়েক বছর আগে দুই রাজ্যের সরকারের মধ্যে হওয়া সমঝোতা অনুযায়ী, সীমান্ত এলাকার ‘নো ম্যানস ল্যান্ড’ এলাকাগুলোয় স্থিতাবস্থা বজায় থাকার কথা।

কিন্তু লাইলাপুরের লোকজন স্থিতাবস্থা লঙ্ঘন করে সেখানে কিছু অস্থায়ী কুঁড়েঘর তৈরি করে। মিজোরামের লোকজন সেগুলো আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়।

একই দিন আসামের কাছাড়ের পুলিশ সুপার বি এল মীনা বলেছেন, উত্তেজনা এখনো বিরাজ করছে কিন্তু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। আসামের দিকে একজন আহত হয়েছেন। কেউ মারা না গেলেও সামাজিক মাধ্যমে বিভিন্ন গুজব ছড়ানো হচ্ছে।

রোববার আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল বিষয়টি নিয়ে মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রী জোরামথঙ্গার সাথে টেলিফোনে কথা বলেছেন। পরে এক বিবৃতিতে সোনোয়াল বলেছেন, সীমান্ত নিয়ে দুই পক্ষের মতপার্থক্য থাকতে পারে কিন্তু অবশ্যই তা আলোচনার মাধ্যমে নিষ্পত্তি করতে হবে।

আরও পড়ুন: বেতন কম, পদত্যাগ করতে চান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

2 thoughts on "সীমানা নিয়ে আসাম ও মিজোরামে মধ্যে সংঘর্ষ"

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এইরকম আরো খবর দেখুন

© All rights reserved © 2020- SottoSamachar.Com || মানুষের সাথে, মানুষের পাশে।

Search Results

Web result with site link

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102